উইন্ডিজ সিরিজে সাকিব-তামিম!

0
96

নভেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তামিম ইকবালের ফেরাটা অনেকটা প্রত্যাশিতই। ভেঙে যাওয়া কব্জি প্রায় ঠিক হয়ে গেছে। এক্স-রেতে কোনো চিড়ের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। অচিরেই তিনি ব্যাট হাতে নকিংও শুরু করে দেবেন বলেই জানা গেছে। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সাকিব আল হাসান যদি ফেরেন তাহলে সেটা একটা চমকই হবে। সে সম্ভাবনাই এখন তৈরি হয়েছে।

সাকিবের হাতে কোনো সংক্রমণ নেই এখন। চোট পাওয়া আঙুলে ব্যথাও নেই, ফোলাও নেই। অনেকটাই স্বাভাবিক হয়ে গেছে। আপাতত অস্ত্রোপচারেও প্রয়োজন নেই। তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তাকে দেখা যেতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান।খবর সমকাল ।

২২ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে তামিম ইকবালকে পাওয়া যাবে বলেই আশা করছেন বিসিবি কর্তারা। তবে সাকিবকে শুরুতে না হলেও ওই সিরিজে পাওয়ার আশা ছাড়ছেন না আকরাম খান। মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে নিজের কার্যালয়ে স্পষ্ট করেই সে কথা বলেছেন আকরাম, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজেই হয়তো তাদের পাব। এমনই আশা করছি। দু’জনকে হয়তো শুরু থেকেই পাব না, তবে আশা করছি পাব।’

সাকিবের খেলাটা নির্ভর করছে ডাক্তারের প্রতিবেদনের ওপর। প্রতিবেদন ইতিবাচক হলে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে অবশ্যই খেলবেন তিনি। তবে আকরাম খান সম্ভাবনা দেখলেও তিনি জোর দিয়ে বলেছেন যে, সবকিছু নির্ভর করছে ডাক্তারের প্রতিবেদন ও সাকিবের ওপর। অবশ্য সাকিবও ক’দিন আগে একটি সাক্ষাৎকারে দ্রুত মাঠে ফেরার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সাকিব আশার কথা জানিয়ে বলেন, ‘অস্ত্রোপচার না করেও খেলা সম্ভব হতে পারে। আসলে মাঠে ফেরার কোনো টাইম ফ্রেম নেই। এখন হাতে ব্যথা নেই। হয়তো সামনের মাসেই খেলতে পারি।’

গত জানুয়ারিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে বাঁহাতের কনিষ্ঠায় চোট পেয়েছিলেন সাকিব। এরপর আগস্টে উইন্ডিজ সফরে আবার ফিরে আসে সেই চোট। চোট নিয়ে এশিয়া কাপে খেলতে গিয়ে আঙুলের অবস্থা ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছিল। টুর্নামেন্টের মাঝপথে দেশে ফিরে আসেন। তার আঙুল থেকে পুঁজ বের করা হয়। ধরা পড়ে সংক্রমণ। এখন সে চোট থেকে প্রায় সেরে উঠেছেন সাকিব।

LEAVE A REPLY